মৌলভীবাজারের জুড়ী ও বড়লেখা উপজেলায় গত কয়েকদিনের অতি বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলের কারণে সৃষ্ট বন্যায় পানিবন্দি হয়ে রয়েছেন লক্ষাধিক মানুষ। পানিবন্দি এসব মানুষের দিন কাটছে সীমাহীন কষ্টে। অনেকে ইতিমধ্যে বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছেন। তবে বেশীরভাগ মানুষ নিজেদের ঘরে হাটু-কোমর সমান পানি থাকা সত্ত্বেও ভিটে মাটিতেই কষ্টে দিন অতিবাহিত করছেন। বেশীরভাগ জায়গায়ই কোন ত্রাণ সহায়তা পৌছায়নি। পানিতে রাস্তা ঘাট তলিয়ে গেছে। হাটবাজারেও যেতে পারছেন না। এজন্য খাদ্য কষ্টে মানুষের ভোগান্তির শেষ নেই।

এদিকে, বন্যার শুরু থেকেই বন্যার্ত এই দুই উপজেলার মানুষের পাশে থেকে সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য এস এম জাকির হোসাইন। 


গত চারদিন থেকে তিনি জুড়ী ও বড়লেখা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের বাড়ীতে বাড়ীতে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন। এছাড়াও বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে রান্না করা খাবার বিতরণ করছেন। 

বৃহস্পতিবারও জুড়ী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চলমান ছিল।

এ ব্যাপারে এসএম জাকির হোসাইন বলেন, বন্যায় পানিবন্দি হয়ে মানুষেরা সীমাহীন দুর্ভোগে রয়েছেন। তারা ঘরের ভেতরে বাহিরে পানি থাকা সত্ত্বেও নিজেদের ভিটেমাটিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পড়ে রয়েছেন। আবার অনেকের ঘরবাড়ি বন্যার পানিতে ভেসে যাওয়ায় আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করছেন। তাদের এ দুঃসময়ে নিজের সাধ্যমত পাশে থাকার চেষ্টা করছি। আসুন আমরা সবাই মিলে তাদের পাশে দাড়াই।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডিজেএস