স্কটল্যান্ডের জাতীয়তাবাদী দল এসএনপির সর্বোচ্চ নেতা নির্বাচিত হয়েছেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত হামজা ইউসুফ। এর মধ্য দিয়ে হামজা দেশটির ‘ফার্স্ট মিনিস্টার’ হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে যাচ্ছেন।

বিবিসি বলছে, দ্বিতীয় গণনায় ৫২.১ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী হন হামজা ইউসুফ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি অর্থ সচিব কেট ফোর্বস পেয়েছেন ৪৭.৯ শতাংশ ভোট পান। এর আগে, প্রথম গণনায় প্রাক্তন মন্ত্রী অ্যাশ রেগান ১১.১ শতাংশ ভোট পেয়েছিলেন।
নির্বাচিত হয়ে হামজা ইউসুফ বলেছেন, আমি একজন গর্বিত স্কটিশ। আমি জানি সম্মিলিতভাবে আমরা টিম এসএনপির অংশ হিসাবে কঠোর পরিশ্রম চালিয়ে যাব।


বিজয়ের ভাষণে হামজা বলেন, আমি একজন গর্বিত স্কটিশ এবং সমানভাবে গর্বিত ইউরোপীয়। স্কটল্যান্ড একটি ইউরোপীয় জাতি। আমরা ইউরোপীয় ইউনিয়নে ফিরে যেতে চাই। মানবাধিকার, শান্তি, সমৃদ্ধি এবং সামাজিক ন্যায়বিচারের ওপর ভিত্তি করে একটি মহাদেশ (ইউরোপ) গঠনে আমাদের ভূমিকা পালন করতে চাই।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হামজা ইউসুফের জয়ের খবরে তার মা শায়েস্তা ভুট্টো ও স্ত্রী নাদিয়া এল-নকলা চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি। হুমজা ইউসুফ প্রথম স্কটিশ এশীয়, যিনি স্কটল্যান্ডের 'ফার্স্ট-মিনিস্টার'। ৩৭ বছর বয়সে তিনি সর্বকনিষ্ঠ মন্ত্রী হলেন স্কটল্যান্ডের।

হামজার বিজয় স্কটল্যান্ডের নেতৃত্বের 'প্রজন্মগত পরিবর্তনের' ইঙ্গিত দেয় বলেও বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/মিআচৌ