হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে দুই পরিবারের সংঘর্ষে আহত হবার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফয়েজ মিয়া (২০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। সোমবার (১০ এপ্রিল) সকালে সিলেট উসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

নিহত ফয়েজ মিয়া উপজেলার জলসুখা ইউনিয়নের নোয়াগড় গ্রমের আশক আলীর পুত্র। এছাড়াও সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। 


পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বিগত কিছু দিন যাবত জলসুখা ইউনিয়নের নোয়াগড় গ্রামের ৮ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল মুকিত মিয়া ও একই গ্রামের আশক আলীর মধ্যে কৃষি জমিতে গরু চড়ানোকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলে আসছিলো। রবিবার (৯ এপ্রিল) বিকালে বিষয়টি নিয়ে উভয় পরিবারের লোকজনের মধ্যে বাক-বিতন্ডা হয়। বাক- বিতন্ডার এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষে ফয়েজ মিয়া গুরুতর আহত হন। রবিবার সন্ধ্যায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মো. মাসুক আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। 

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/এনামুল/পল্লব-১১