ছবি : রুবেল মিয়া

সিলেটের শাহজালাল উপশহরে কোমল পানীয় কোকা-কোলা পান করে নারী ও শিশুসহ একই পরিবারের ৫ জন অজ্ঞান হয়ে পড়ার খবর পাওয়া গেছে। সোমবার (১০ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১টায় সিলেটের শাহপরাণ থানাধীন উপশহর এলাকার এইচ ব্ল‌কের ৩নং রো‌ডের আলী হো‌সেনের বাসায় এ ঘটনা ঘটে। 

বাসার পার্শ্ববর্তী একটি দোকান থেকে সেই কোকা-কোলা কিনে নিয়ে আসা হয়েছিলো। 


অজ্ঞান হওয়ার পর সেই ৫ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তারা হাসপাতালটির ৬ তলার ৩৬ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। 

কোকা-কোলা খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়া ৫ জন হলেন- ওই বাসার শামসুল হকের স্ত্রী কামরু‌ন্নেসা (৩৫), মেয়ে এল‌মিনা (১৪), রু‌বিনা বেগম (১৭) ও লুভনা বেগম (১০) এবং ছেলে তামীম আহমদ (৪)।

তবে এ বিষয়ে পুলিশ এখনও অবগত নয়।

শামসুল হকের ভাই বাচ্চু মিয়া সিলেটভিউ-কে বলেন- রাজু নামের তার এক ভাতিজা বাসার পাশের একটি দোকান থেকে সোমবার রাতে কয়েকটি কোকা-কোলার বোতল নিয়ে এসে এদের পান করতে দেন। এগুলো পান করার পরই কামরু‌ন্নেসা, এল‌মিনা, রু‌বিনা, লুভনা ও তামীম অজ্ঞান হয়ে যান। 

তৎক্ষণাৎ পরিবারের সদস্যরা তাদের ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করেন। পরে চিকিৎসায় তাদের জ্ঞান ফেরে। তবে জ্ঞান ফিরলেও তারা স্বাভাবিকভাবে কথা বলতে পারছেন না। 

ঘটনার পর থেকে রাজু নামের ওই যুবক পলাতক রয়েছেন।

এ বিষয়ে শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের সিলেটভিউ-কে বলেন- বিষয়টি আমরা এখনও জানি না। খোঁজ নিয়ে দেখছি। 

সিলেটভিউ২৪ডটকম / নুরুল / ডালিম