দুই বাংলার ১০ বাঙালিকে ‘বছরের বেস্ট’ শিরোপা দিয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার অনলাইন। গত ১ বছরে এই ১০ জন কৃতী বাঙালিকে খুঁজে নিয়েছে তারা। এতে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশের পরীমণি। পুরস্কার নিতে কলকাতায় উপস্থিত হন তিনি। আইটিসি রয়্যাল বেঙ্গলে তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিম এবং টলিউড অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।

পুরস্কার নিতে মঞ্চে উঠে পরীমণি বলেন, চলচ্চিত্র শিল্পে আরও এক হয়ে কাজ করা উচিত দুই বাংলার। দুই বাংলার সিনেমা দু’জায়গাতেই দেখানো উচিত।
২০১৫ সালে পর্দায় আবির্ভাবের পর থেকে গতি কমতে দেখা যায়নি পরীমণির কর্মজীবনে। ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ ছবি দিয়ে পথ চলা শুরু। তারপরেই দৌড়। একই বছর পর পর মুক্তি পায় ছ’টি ছবি। অল্প সময়েই দেশে মিষ্টি প্রেমের ছবির জনপ্রিয় মুখ হয়ে ওঠেন পরীমণি। ‘আরও ভালোবাসব তোমায়’, ‘নগর মস্তান’, ‘রক্ত’, ‘পুড়ে যায় মন’, ‘আপন মানুষ’, ‘সোনা বন্ধু’, ‘স্বপ্নজাল’, ‘গুণিন’-এর মতো একের পর এক ছবিতে তাঁর মুখ্য ভূমিকায় মুগ্ধ হয়েছেন বহু দর্শক। দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে পরীমণিকে নিয়ে উৎসাহ গড়িয়েছে পশ্চিমবঙ্গেও।


এখন কাজের সূত্রে প্রায়ই কলকাতায় যান এই অভিনেত্রী। পরী বলেন, ‘কলকাতাকে আগে বিদেশ মনে হত। এখন হয় না। এ রকমও হয়েছে, আমার ফ্লাইট আজ। কিন্তু আমি দু’পাঁচ দিন পরে দেশে গিয়েছি।’

এদিকে সেরা অভিনেতা হয়েছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। তার হাতে সেরার সম্মান তুলে দেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং অনির্বাণ ভট্টাচার্য। এদিন অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন আনন্দবাজার অনলাইনের সম্পাদক অনিন্দ্য জানা এবং নাট্যপরিচালক-অভিনেত্রী সোহিনী সেনগুপ্ত।

উল্লেখ্য, প্রতি বছরই দুই বাংলার মানুষের মধ্যে থেকে ‘বছরের বেস্ট’ নির্বাচিত করে পুরস্কৃত করে আসছে গণমাধ্যমটি।সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বছরজুড়ে সাফল্যে যারা নজর কেড়ে থাকেন, প্রতি বছর ‘বছরের বেস্ট’ অনুষ্ঠানে তাদেরই পুরস্কৃত করে আনন্দবাজার অনলাইন।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/মিআচৌ


সূত্র : আনন্দবাজার