এবারের ঈদ-উল-ফিতরে ১২৭ কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

টাকার অংকে যা (প্রতি ডলার ১০৭ টাকা হিসেবে) ১৩ হাজার ৬০৭ কোটি টাকা।


এপ্রিল মাসের ২১ দিনে প্রবাসীরা বৈধ পথেই এ টাকা দেশের পাঠিয়েছেন।  ঈদ পরবর্তী সোমবার (২৪ এপ্রিল) এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

ঈদের আগে প্রবাসীরা দেশে অবস্থানরত পরিজনের জন্য বেশি বেশি অর্থ পাঠিয়ে থাকেন। এবারের ঈদেও সেই ধারা অব্যাহত রয়েছে।    

প্রবাসী আয় সম্পর্কিত বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, প্রবাসীরা এবারের ঈদের প্রথম সপ্তাহে ৪৭ কোটি ৬৮ লাখ ৯০ হাজার ডলার, দ্বিতীয় সপ্তাহে ৪৮ কোটি ১৮ লাখ ডলার এবং তৃতীয় সপ্তাহে ৩১ কোটি ৩০ লাখ ডলার ২০ হাজার মার্কিন ডলার দেশে পাঠিয়েছেন।

তথ্য অনুযায়ী, চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম (জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত) ৯ মাসে মোট এক হাজার ৬৩০ কোটি মার্কিন ডলার প্রবাসী আয় দেশে এসেছে।  

আগের অর্থবছরে একই সময়ে প্রবাসীরা পাঠিয়েছিলেন, এক হাজার ৫২৯ কোটি ডলার। অর্থাৎ এ সময়ে ৭৪ কোটি মার্কিন ডলার প্রবাসী আয় বেশি পাঠিয়েছেন।  

আগের ২০২১-২২ অর্থবছরে প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন ২ হাজার ১০৩ কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার। এর আগে ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশের প্রবাসী আয় ছিল ২ হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ ডলার।

বৈধপথে প্রবাসী আয় পাঠাতে সরকারের নানামুখি উদ্যোগের ফলে সাম্প্রতিক সময়ে প্রবাসী আয় বেড়েছে। একই সময়ে বিদেশে মানুষ যাওয়ার হারও বেড়েছে।  

প্রবাসী আয় ইতিবাচক ধারায় ফেরার এটাও একটি কারণ বলে উল্লেখ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/মিআচৌ


সূত্র : বাংলা নিউজ ২৪