তারা টাওয়ার হ্যামলেটসের রাজনীতি,সংস্কৃতি এবং মাইগ্রেন্ট কমিউনিটির জন্য কাজ করেছেন এবং কমিউনিটিতে আলো দিয়েছেন। সাবেক এমপি লেবার পার্টির নেতা মূলধারায় বাঙালির বসতি স্থাপনে যিনি ছায়া হয়ে ছিলেন সেই বাতিঘর পিটার সোর এমপি, কমিউনিটির নিবিড় পরিচর্যায় যিনি ছিলেন মরহুম মিয়া আক্তার হোসেন ছানু মিয়া, সাংবাদিক, সাবেক কাউন্সিলর মরহুম শাহাব উদ্দিন বেলাল ও মরহুম আব্দুস সালিক যিনি ব্রিকলেনের সালিক ভাই নামে পরিচিত ছিলেন।

তাদের স্মৃতি স্মারক প্রতিষ্ঠার জন্য বৃহস্পতিবার টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের কালচারাল লিড মেম্বার কাউন্সিলর সাবেক স্পিকার সাবিনা আক্তারের কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে লাভ টাওয়ার হ্যামলেটেসের পক্ষে। পূর্ব লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে সাইট ভিজিটে এ সময় উপস্থিত ছিলেন টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পিকার কাউন্সিলর আহবাব হোসেন।

ক্যাম্পেইন গ্রুপের পক্ষে আনসার আহমদ উল্লাহ, আহাদ চৌধুরী বাবু,  জামাল খান, জুয়েল রাজ। এতে ক্যাম্পেইন গ্রুপের পক্ষ থেকে সবার সহযোগিতা কামনা করা হয়।

এ প্রসঙ্গে মুখপাত্র সাংবাদিক আহাদ চৌধুরী বাবু জানান, তৃতীয় বাংলার কমিউনিটির আলোকিত মানুষদের কাজ এবং ত্যাগকে মুল্যায়নে আমরা একটি প্রেসার গ্রুপ হিসাবে কাজ করবো। এর ধারবাহিকথায় টাওয়ার হ্যামলেটসের  ইতিহাস ঐতিহ্যের স্মারক বীরদের বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা থাকবে ৷ কাউন্সিলার সাবিনা আক্তার বিষয়টি নিয়ে প্রদক্ষেপ গ্রহণে সক্রিয় হবেন বলে আশ্বাস দেন ।

স্বাধীনতা টাস্ট্রের আনসার আহমদ উল্লাহ বলেন, আমরা মূলধারার নিজেদের অবস্থান জানান দিয়েছি ৷ বর্ণবাদবিরোধী প্রচারণায় ও কমিউনিটি গঠনে যাদের প্রত্যক্ষ অবদান রয়েছে তাদের স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্য আহবান জানিয়েছি ৷ এতে ইতিহাস সমৃদ্ধ হবে ৷

স্পিকার কাউন্সিলার আহবাব হোসেন এ ধরনের ক্যাম্পেইন বহুজাতিক সংস্কৃতিতে অন্যতম উদাহরণ বলে মন্তব্য করেন ।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে মেয়র জন বিগসকে প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে ৷

সিলেটভিউ২৪ডটকম/প্রেবি/আরআই-কে