লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো-ফুটবলের রেকর্ড কিংবা মাইলফলকে হরহামেশাই একে অপরকে ছাড়িয়ে যান। আর্জেন্টাইন বিশ্বকাপজয়ীকে আরও একবার টেক্কা দিলেন পর্তুগিজ সুপারস্টার।
 

যুক্তরাষ্ট্রের সাময়িকী ফোর্বসের গেল ১২ মাসের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অ্যাথলেলের তালিকায় শীর্ষে আছেন রোনালদো। আর দুইয়ে আছেন মেসি ও তিনে জায়গা করে নিয়েছেন ফরাসি ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপে। অন্য সব খেলা ছাপিয়ে সেরা তিনে রাজত্ব এই তিন ফুটবলারের।
 


গেল বছরের শেষ দিকে ইউরোপের পাট চুকিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবে পাড়ি জমান রোনালদো। দেশটির ক্লাব আল-নাসরে রেকর্ড ট্রান্সফার ফিতে নাম লেখানোর কারণে পারিশ্রমিকে বড় লাফ দিয়েছেন সিআরসেভেন। সেরা পারিশ্রমিক বাছতে অ্যাথলেটদের আয়কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে-মাঠ থেকে আয় আর স্পন্সর, প্রচারণা ও আনুষঙ্গিক বিষয়াদি থেকে আয়।
 

২০২২ সালের ১ মে থেকে চলতি বছরের ১ মে পর্যন্ত অ্যাথলেটদের আয়কে বিবেচনায় নিয়েছে ফোর্বস। মাঠের আয়ের মধ্যে প্রাইজমানি, বেতন ও বোনাস হিসাব করা হয়েছে। মাঠের বাইরের আয়ের মধ্যে স্পন্সর চুক্তি, নিবন্ধনভুক্ত আয়, হাজিরা ফির পাশাপাশি খেলোয়াড়টি কোনো ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকলে সেই ব্যবসা থেকে যে পরিমাণ টাকা ফেরত পেয়েছেন, সেসবও হিসাব করেছে ফোর্বস।
 

সম্প্রতি প্রকাশিত ফোর্বসের এক প্রতিবেদন বলছে, ২০২৩ সালে রোনালদোর আয় ১ হাজার ৪৩৫ কোটি টাকার ওপরে (১৩৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার)। রোনালদো থেকে প্রায় ৬৩ কোটি টাকা (৬ মিলিয়ন) কম উপার্জন করে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন অনুমোদনহীন সৌদি সফরে গিয়ে নিষেধাজ্ঞায় পড়া লিওনেল মেসি। তার উপার্জন ১ হাজার ৩৭১ কোটি টাকার বেশি (১৩০ মিলিয়ন ডলার)। এরপরে রয়েছে ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। তার উপার্জন ১ হাজার ২৬৬ কোটি টাকার ওপরে (১২০ মিলিয়ন ডলার)।
 

সেরা তিন পজিশন ফুটবলের দখলে থাকলেও চারে জায়গা করে নিয়েছেন বাস্কেটবল কিংবদন্তি লেব্রন জেমস। মোট ১১ কোটি ৯৫ লাখ ডলার আয় করে ফোর্বসের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অ্যাথলেটের তালিকায় চতুর্থ তিনি। অন্যদিকে, মেক্সিকোর বক্সার ক্যানেলো আলভারেজ ১১ কোটি ডলার আয় করে পাঁচে আছেন। শীর্ষ দশে বাকি পাঁচজনের মধ্যে দুজন করে গলফার ও বাস্কেটবল কিংবদন্তি এবং আরেকজন টেনিস কিংবদন্তি।

 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৪৬


সূত্র : ঢাকাপোষ্ট